ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেওয়া থেকে গৃহবধূকে বাঁচাতে গিয়ে শেষ রক্ষা হলো না শিক্ষার্থীরও |

ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেওয়া থেকে গৃহবধূকে বাঁচাতে গিয়ে শেষ রক্ষা হলো না শিক্ষার্থীরও |

  • Save
  • Save

গাইবান্ধায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক গৃহবধূ। এ সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে এক কলেজছাত্রও নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গৃহবধূর শিশু পুত্র আহত হয়েছে।

গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় গাইবান্ধা শহরের আদর্শ কলেজ সংলগ্ন রেললাইনে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- শিক্ষার্থী জুবায়ের ও গৃহবধূ রাজিয়া বেগম।

নিহত জুবায়ের এসকেএস স্কুল অ্যান্ড কলেজের (দ্বাদশ) বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র। সাঘাটা উপজেলার ভরতখালীর জাহিদুল ইসলামের ছেলে তিনি। আর রাজিয়া পৌর এলাকার মাঝি পাড়ার আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী।

গাইবান্ধা পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুস সামাদ রোকন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী রাজিয়া বেগম সোমবার সকালে তার এক বছরের ছেলে আবির হোসেনকে নিয়ে আত্মহত্যা করতে রেললাইনে দাঁড়ান।

গাইবান্ধা থেকে ছেড়ে আসা একটি লোকাল ট্রেন আসছিল। এ সময় তাদের দেখতে পেয়ে কলেজছাত্র জুবায়ের তাদের বাঁচাতে যান।

আবিরকে রক্ষা করতে পারলেও ওই নারী ও জুবায়ের ট্রেনের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

বোনারপাড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুল ইসলাম জানান, তাদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।