ছিন্নমূল মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাই সরকারের লক্ষ্য: শেখ হাসিনা

ছিন্নমূল মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাই সরকারের লক্ষ্য: শেখ হাসিনা

জাতির পিতার আদর্শ নিয়েই কাজ করা হচ্ছে, আর ছিন্নমূল মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাই এ সরকারের লক্ষ্য বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের তৃতীয় ধাপে বাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে এসব কথা বলেন তিনি।
সরকারপ্রধান বলেন, অবহেলিত মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করার বিষয়টি অব্যাহত থাকবে। সারা দেশে প্রায় ৮ লাখ মানুষ ছিন্নমূল, তারা সবাই পর্যায়ক্রমে ঘর পাবেন। মানুষ ঘর পাওয়ার পর তাদের মুখের হাসিই সবচেয়ে খুশির বিষয়। মানুষ যেন মানুষের মতো বাঁচতে পারে সেটিই আওয়ামী লীগ সরকারের লক্ষ্য।এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তর-পরবর্তী সময়ে যারা ক্ষমতায় ছিল তারা ব্যস্ত ছিল নিজেদের আখের গোছাতে। যারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না, তারাই ছিল শাসনে। ওই সময় মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয়নি।

 
আরও পড়ুন:  বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে চট্টগ্রাম বন্দর অবদান রাখছে

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আদর্শের পথ হারিয়ে ফেলে পঁচাত্তরের পর। বিজয়ের আদর্শ ধ্বংস করে দেশকে পাকিস্তানি ভাবধারায় গড়ে তোলার অপচেষ্টা করেছিল অবৈধ সরকারগুলো।

তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের রক্ত বৃথা যেতে পারে না। সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ।
এর আগে রোববার (২৪ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব (পিএমও) মো. তোফাজ্জেল হোসেন মিয়া পিএমওতে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানান, সরকার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ৩২ হাজার ৯০৪টি বাড়ি হস্তান্তর করবেন।
ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার পোড়াদিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্প, বরগুনা জেলার বরগুনা সদর উপজেলার খেজুরতলা আশ্রয়ণ প্রকল্প, সিরাজগঞ্জ জেলার সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকশাবাড়ি আশ্রয়ণ প্রকল্প এবং চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা উপজেলার হাজীগাঁওয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্প রয়েছে।